• আজ- মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৬:১৮ অপরাহ্ন
Logo

বাংলাদেশের জনসংখ্যা প্রায় ১৭ কোটি

লেখক : / ১১৩ বার দেখা হয়েছে
আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২৩

add 1

দেশের জনসংখ্যার চূড়ান্ত পরিসংখ্যান প্রকাশ ও জনশুমারির তথ্য অনুযায়ী বর্তমানে বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৯৮ লাখ ২৮ হাজার ৯১১ জন। সমন্বয়কৃত মোট জনসংখ্যার ৬৮ দশমিক ৩৪ শতাংশ পল্লিতে এবং ৩১ দশমিক ৬৬ শতাংশ শহরে বাস করে। এর মধ্যে ঢাকায় রয়েছে ৪ কোটি ৫৬ লাখ ৪৩ হাজার ৯৯৫ জন, যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ২৬.৮৮ শতাংশ। এর আগের বিভাগভিত্তিক জনসংখ্যা পর্যালোচনা করে দেখা যায়, ঢাকা বিভাগের গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ৪ কোটি ৪২ লাখ ১৫ হাজার ১০৭ জন। সবচেয়ে কম জনসংখ্যা বরিশাল বিভাগে। গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ৯১ লাখ ১০২ জন। যার সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা দাঁড়ায় ৯৩ লাখ ২৫ হাজার ৮১৮ জন। যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ৫.৪৯ শতাংশ। চট্টগ্রাম বিভাগে গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ৩ কোটি ৩২ লাখ ২ হাজার ৩২৬ জন। যার সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা দাঁড়ায় ৩ কোটি ৪১ লাখ ৭৮ হাজার ৫৮১ জন। যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ২০.১৩ শতাংশ।
খুলনা বিভাগে গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ১ কোটি ৭৪ লাখ ১৬ হাজার ৬৪৫ জন। যার সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা দাঁড়ায় ১ কোটি ৭৮ লাখ ১৩ হাজার ৯৫৭ জন। যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ১০.৪৯ শতাংশ। ময়মনসিংহ বিভাগে গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ১ কোটি ২২ লাখ ২৫ হাজার ৪৯৮ জন। যার সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা দাঁড়ায় ১ কোটি ২৬ লাখ ৩৭ হাজার ৫২৪ জন। যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ৭.৪৪ শতাংশ। রাজশাহী বিভাগে গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ২ কোটি ৩ লাখ ৫৩ হাজার ১১৯ জন। যার সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা দাঁড়ায় ২ কোটি ৭ লাখ ৯৪ হাজার ২৩ জন। যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ১২.২৪ শতাংশ। রংপুর বিভাগে গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ১ কোটি ৭৬ লাখ ১০ হাজার ৯৫৬ জন। যার সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা দাঁড়ায় ১ কোটি ৮০ লাখ ২০ হাজার ৭৩ জন। যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ১০.৬১ শতাংশ। সিলেট বিভাগে গণনাকৃত জনসংখ্যা ছিল ১ কোটি ১০ লাখ ৩৪ হাজার ৮৬৩ জন। যার সমন্বয়কৃত জনসংখ্যা দাঁড়ায় ১ কোটি ১৪ লাখ ১৫ হাজার ২১ জন। যা মোট সমন্বয়কৃত জনসংখ্যার ০৬.৭২ শতাংশ। এদের মধ্যে পুরুষ ৮ কোটি ৪০ লাখ ৭৭ হাজার ২০৩ জন। নারী ৮ কোটি ৫৬ লাখ ৫৩ হাজার ১২০ জন।
জনসংখ্যার বিচারে আদর্শ সমাজ গড়ে উঠতে পারেনি বাংলাদেশ। দুর্ভাগ্যজনক যে মূলত নব্বইয়ের দশক থেকে জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার ব্যাপক প্রচারে যেমন ভাঁটা পড়েছে, তেমনি বাড়েনি নানা কারণে জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা গ্রহণে দম্পতিদের আগ্রহ। মনে রাখা দরকার যে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি যতটা আশাব্যঞ্জক হোক না কেন, তা কিন্তু জনসংখ্যার প্রয়োজন মেটাতে পারছে না। পারলে বেকারত্বের হার এতটা বাড়ত না। তাই অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পাশাপাশি বর্তমানে প্রয়োজন জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা। গ্রাম-ইউনিয়ন-থানা পর্যায়ে নতুন করে ঢেলে সাজানো এবং এমনভাবে কার্যকর করা, যাতে আগামী দু-তিন দশকে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ১ বা শূন্য শতাংশে এসে দাঁড়ায়। সেই সঙ্গে তৃণমূল স্তরে দ্রুত ও ব্যাপক শিক্ষার ব্যবস্থা নিশ্চিত করা দরকার, যাতে অদূর ভবিষ্যতে গোটা জাঁতি শিক্ষিত হয়ে উঠতে পারে। জাতীয় সংকট নিরসনে এ ব্যাপারে আমরা সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। জনসংখ্যার বৃদ্ধির বিপজ্জনক হার রোধে নেওয়া হোক প্রয়োজনীয় কার্যক্রম।

add 1


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য লেখা সমূহ

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার (সন্ধ্যা ৬:১৮)
  • ১৬ জুলাই, ২০২৪
  • ৯ মহর্‌রম, ১৪৪৬
  • ১ শ্রাবণ, ১৪৩১ (বর্ষাকাল)
Raytahost Facebook Sharing Powered By : Sundarban IT